ফ্রান্সে ইসলামের নীরব বিপ্লব

সবমিলিয়ে ফ্রান্সে ইসলামের নীরব বিপ্লব ঘটে গেছে।সাবেক ইন্টেলিজেন্স অফিসারসহ অনেকেই বলছেন- ফ্রান্স হলো ধর্ম পরিবর্তনের (ইসলাম গ্রহণের) উর্বর ভূমি- ফ্রান্সে ইসলাম

চার্চের খবরদারি থেকে ইউরোপের মুক্তি (ফ্রান্সে হিজাব নিষিদ্ধ হওয়ার আদ্যোপান্ত)

বদলে যাওয়া প্রেক্ষাপট ৯ ডিসেম্বর ১৯০৫। ফ্রান্সে চার্চ থেকে রাষ্ট্রের বিভাজনের আইনটি পাস হয়। বিশেষ একটি ধর্মের অধীনতা বা প্রাধান্য থেকে ফ্রান্স প্রথমবারের মতো সেক্যুলার রাষ্ট্রের পরিচিতি লাভ করে। রাষ্ট্রের নিরপেক্ষতার নীতি, ধর্মপালনের স্বাধীনতা এবং চার্চের সাথে সম্পৃক্ত জনগণের অধিকার ছিলো এই আইনটির মৌল বিষয়। ইউরোপসহ পশ্চিমা বিশ্বে প্রথম এবং প্রধানতম সেক্যুলার রাষ্ট্র হিসেবে এখনো […]

ফ্রান্সে ইসলাম ও মুসলিম সম্প্রদায়-১

ফ্রান্সে ইসলামের সূচনা ফ্রান্সে ইসলামের অগ্রযাত্রাকে বিজয় হিসেবে বা সে বিজয়কে নির্দিষ্ট একটা সময়ের ফ্রেমে দেখানো মুশকিল। স্পেন বিজয়ের বছর ৭১১ সালকেই ফ্রান্সে ইসলাম প্রবেশের বর্ষ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। সে হিসেবে ৭৩২ পর্যন্ত মোট ২১ বছরের সময়কালটাই ফ্রান্সে ইসলামের অগ্রযাত্রা, বিজয় বা প্রভাব সৃষ্টিকারী যুগ। অবশ্য ৭৩২-এ পরাজয়ের পরও উকবা বিন হাজ্জাজের দৃঢ়তায় ৭৫৯ […]

ইউরোপের ইসলামী যুগ : মুফতী মুহাম্মদ শফীর (রহ.) কলমে…

ইউরোপের ইসলামী যুগ তাফসিরে মাআরিফুল কুরআনের রচয়িতা মুফতি মুহাম্মদ শফী রহ. তার ইলমি জাওয়াহেরে বিশেষ এক প্রসঙ্গে ইউরোপের তৎকালীন বাস্তবতা তুলে ধরে লিখেন- বিজয়ী বেশে ইসলাম যখন পশ্চিমা বিশ্বে প্রবেশ করলো এবং আন্দুলুস ও পর্তুগাল তাদের শাসনাধীনে চলে এলো, তো অর্ধ শতাব্দী পেরোবার আগেই এখান থেকে প্রচলিত বারবারি ভাষা উঠে গেলো এবং এই অঞ্চল একটা […]

কোন পথে ইউরোপের ইসলাম

বিস্ময়কর বাস্তবতা একটা ব্যাপার খুব পরিষ্কার। বাকস্বাধীনতা, সমানাধিকার, অস্ত্রমুক্ত শান্তিময় বিশ্ব ইত্যাদি আরো যেসব শ্লোগান পশ্চিমা মিডিয়া, বিভিন্ন সংস্থা এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ নিত্য ব্যবহার করে, সেগুলো বিশ্ববাসীকে মুলো দেখানো ব্যাপার ছাড়া কিছু নয়। ভাবতে অবাক লাগে- ১৯৯৯ সালেই প্রতি ৩৪ মিনিটে একটি খুন, প্রতি ৬ মিনিটে একটি ‘বলপূর্বক’ ধর্ষণ, প্রতি ৩৩ মিনিটে একটি শারীরিক নিগ্রহ […]